Breaking News
worldcup-final-match-play-pakistan-india

বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলুক ভারত-পাকিস্তান, মনেপ্রাণে চাইছেন ধোনির পাকিস্তানি ভক্ত বশির চাচা

আসলে তিনি পাকিস্তানি  যাঁকে ভারত–পাকিস্তান ম্যাচে গ্যালারিতে সব সময় দেখা যায়, যিনি পাকিস্তানি হয়েও ধোনির অসম্ভব ভক্ত। এত বড় ভক্ত যে, ধোনির অবসরের পর ক্রিকেট খেলা দেখা ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। বিখ্যাত সেই ‘বশির চাচা’  মাঠে ফিরেছেন। কারণ, ভারতীয় দলের সঙ্গে ফের জুড়ে গিয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনিরনাম। তাই ‘ধোনি সাব’কে জেতাতে ফের ছুটে এসেছেন সুদূর মার্কিন মুলুক থেকে। আগের মতোই ভারত এবং পাকিস্তানের জার্সি একসঙ্গে পরে।

তাঁর পোশাকের ৫০ শতাংশ জুড়ে রয়েছে ভারতের জার্সি, বাকি ৫০ শতাংশ পাকিস্তানের (Pakistan) জার্সি। মাস্কও নাকি সেভাবেই বানানো হয়েছে। আসলে তিনি জন্মসূত্রে পাকিস্তানি হলেও, মনেপ্রাণে ভারতীয় দলের সমর্থক। তাঁর চেয়েও বড় ধোনি সমর্থক। স্বাভাবিকভাবেই বশির চাচার মনে হচ্ছে, মেন্টর ধোনিই ভারতের সবচেয়ে বড় অ্যাডভান্টেজ। মাহিই পর্দার আড়াল থেকে জিতিয়ে দেবেন ভারতকে।

আমিরশাহীর টি-২০ বিশ্বকাপ (T20 World Cup) যে ভারতই জিতবে, তা নিয়ে একপ্রকার নিশ্চিন্ত পাকিস্তানি এই বৃদ্ধ। বলে দিচ্ছেন,”বিরাট কোহলির ভারতে একাধিক বড় বড় ক্রিকেটার আছে। দুর্দান্ত টিম করেছে ভারত। বিশ্বকাপ ভারতই জিতবে।” পাকিস্তানের কী হবে? চাচা বলে দিচ্ছেন,”পাকিস্তানের হাতে সলিড টিম নেই। বাবর আজম ছাড়া তেমন তারকা নেই। হাফিজ, মালিকদের মতো পুরনোদের মতো সাজানো দল যে বিশ্বকাপ জেতার মতো না, সেটা রামিজ রাজাও (পাক বোর্ডের প্রধান) জানেন।” তবে, পাকিস্তানি হিসাবে বশির চাচা পাকিস্তানের জন্যও গলা ফাটাবেন। পাক দলের জন্য ‘দোয়া’ করবেন। বিশ্বকাপ থেকে তাঁর একটাই চাওয়া, “ফাইনাল খেলুক ভারত এবং পাকিস্তান। আর কিছু নয়।”

এই মুহূর্তে ভারত-পাকিস্তান, দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক একেবারেই ভাল নয়। সীমান্তে সবসময় যেন রণং দেহি মেজাজে দুই প্রতিবেশী। দু’দেশের সাধারণ ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যেও সৌহার্দ্য-সৌজন্যের থেকে একে অপরের প্রতি ঘৃণাই যেন বেশি। সেই ঘৃণার ধু ধু মরুভূমির মধ্যে, বশির চাচার মতো সমর্থকরা যেন এক টুকরো মরুদ্যান।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

Asia Cup-এর আগে দুর্দান্ত শতরানে ভারতকে হুঁশিয়ারি দিলেন ফখর জামান, হাফ-সেঞ্চুরিতে রোহিতদের সতর্ক করলেন বাবর আজম

ফাইনালে দুর্দান্ত শতরান করে কার্যত একাই ভারতের হাত থেকে ২০১৭-র চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ছিনিয়ে নিয়েছিলেন ফখর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.