Breaking News
We are brothers, the two countries have suffered because of separation ', a group of Bangladeshis overjoyed at Pak's victory

আমরা ভাই-ভাই, ২ দেশ আলাদা হওয়ায় কষ্ট পেয়েছি’,পাকের জয়ে উচ্ছ্বাস একদল বাংলাদেশির

>পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজ হেরে গিয়েছে বাংলাদেশ। তাতে কোনও হতাশা নেই একদল বাংলাদেশির। উলটে তাঁদের বক্তব্য, ‘আমরা ভাই-ভাই। হার-জিত নিয়ে কোনও সমস্যা নেই’।

Advertisement

শনিবার বাংলাদেশকে আট উইকেটে হারিয়ে দিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ পকেটে পুরে নিয়েছে পাকিস্তান। সেই জয়ের পর একটি সংবাদমাধ্যমে এক বাংলাদেশি (নিজেকে তাই দাবি করেছেন) বলেন, ‘পাকিস্তান আর বাংলাদেশ তো মনে হয় একই দেশ। আমরা ভাই-ভাই। যে জিতুক, হারুক, আমাদের সমস্যা নেই। আমাদের দুর্ভাগ্য যে পাকিস্তানের সঙ্গে আমাদের দেশটা ভাগ হয়ে গেল, এটাই আমাদের কষ্ট।’ ওই ব্যক্তি আবার পাকিস্তানের জার্সি পরেছিলেন।

তবে শুধু ওই ব্যক্তি নন, পাকিস্তানের জয়ে একইরকম উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আরও কয়েকজন। যাঁরা নিজেদের বাংলাদেশি বলে দাবি করেছেন। সেরকমই একজন বলেন, ‘পাকিস্তান জিতেছে, আমার অনেক ভালো লেগেছে। আমি পাকিস্তানকে সমর্থন করি। আমি কিন্তু বাংলাদেশি।’ তাঁর কথা শেষ হওয়ার আগেই একজন রীতিমতো উচ্ছ্বাসের সঙ্গে বলে ওঠেন, ‘আই লাভ পাকিস্তান, আই লাভ বাংলাদেশ।’

Advertisement

তবে বাংলাদেশিদের একাংশ আবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিরূপ মনোভাব পোষণ করেন। দিনকয়েক আগেই সেই মনোভাব স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। মীরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের অ্যাকাডেমির মাঠে পাকিস্তানের পতাকা লাগিয়ে অনুশীলন করেছিলেন মহম্মদ রিজওয়ান, শাহিন আফ্রিদিরা। তা নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দেন বাংলাদেশের মানুষ।

বাংলাদেশের তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান তো জানান, পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের নিয়ে তাঁর কোনও বক্তব্য নেই। কিন্তু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষ উদযাপনের সময় পাকিস্তানের আচরণ মেনে নেওযা যায় না।অনুশীলনের সময় পাকিস্তানের চাঁদ-তারা পতাকা রাখার বিষয়টি কোনওভাবেই সমর্থন করছেন না তিনি।

Advertisement

সেইসঙ্গে কড়া ভাষায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, পতাকা লাগিয়ে অনুশীলন করছে কেন? সিনেমা চলছে? ভণ্ডামি হচ্ছে? ‘আমার মতে, পাকিস্তানকে পতাকা-সহ নিজেদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া উচিত।’ সঙ্গে তিনি জানান, বাংলাদেশের মানুষের চেতনা এবং হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়। পাকিস্তানের সঙ্গেই যুদ্ধ করে মুক্তি সংগ্রামের মাধ্যমে পরাজিত করা হয়েছিল। ৩০ লাখ শহিদের ‘রক্ত’ দিয়ে বাংলাদেশ গড়ে উঠেছে।

Advertisement

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

পিচে একাধিক গর্ত, ভারতের বিরুদ্ধে খেলতে বিশেষ প্রস্তুতি অস্ট্রেলিয়ার

২০০৪ সালের পর থেকে ভারতের মাটিতে আর টেস্ট সিরিজ জেতেনি অস্ট্রেলিয়া। গত দুটো বর্ডার গাভাসকার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *