Breaking News
they-were-teammates-in-the-school-team

স্কুল দলে সতীর্থ ছিলেন তাঁরা, বিশ্বকাপের ফাইনালে পরস্পরের মুখোমুখি

১২ বছর আগে একই সাজঘরে ছিলেন দু’জনে। স্কুলকে জেতাতে নিয়েছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। রবিবার টি২০ বিশ্বকাপের ফাইনালেও নামবেন তাঁরা। কিন্তু থাকবেন দু’টি আলাদা সাজঘরে। নামবেন দু’টি ভিন্ন দেশের হয়ে। এক সময়ের দুই বন্ধু এখন প্রতিপক্ষ। এক জন অস্ট্রেলিয়ার অলরাউন্ডার মার্কাস স্টোইনিস। অন্য জন নিউজিল্যান্ডের ব্যাটার ড্যারিল মিচেল।

Advertisement

২০০৯ সালে স্কারবরোর হয়ে ফার্স্ট গ্রেড প্রিমিয়ারশিপ জিতেছিলেন মিচেল ও স্টোইনিস। সেই সময় তাঁদের কোচ ছিলেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ঘটনাচক্রে তিনি এখন অস্ট্রেলিয়ার হেড কোচ। সেই সময় স্কুলকে জেতাতে বড় অবদান ছিল তাঁদের। সেমিফাইনালে স্টোইনিস করেছিলেন ১৮৯ রান। আর ফাইনালে বল হাতে মাত্র ২৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন মিচেল।

দীর্ঘ পাঁচ বছর এক সঙ্গে খেলা, জিমন্যাসিয়ামে যাওয়া রুটিন হয়ে গিয়েছিল স্টোইনিস ও মিচেলের। তার পরে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলার জন্য দু’জনেই পার্থ ছাড়েন। স্টোইনিস মেলবোর্নে গিয়ে ভিক্টোরিয়ায় যোগ দেন। অন্য দিকে ২০১১ সালে অস্ট্রেলিয়া ছেড়ে নিউজিল্যান্ডে পাড়ি দেন মিচেল। সেখানে গিয়ে নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্টসের হয়ে খেলা শুরু করেন তিনি।

Advertisement

সেমিফাইনালে মিচেলের ৪৭ বলে ৭২ রানের সুবাদে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে নিউজিল্যান্ড। অন্য দিকে শেষ চারে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শেষ দিকে ৩১ বলে ৪০ করেছেন স্টোইনিস। দু’জনেই অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন। এখন দেখার ফাইনালে দুই বন্ধুর টক্কর কেমন হয়।

Advertisement

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

মাটিতে বল ঠেকলেও ক্যাচের দাবি, ট্রোলড অশ্বিন, কোহলির শাহজাদকে মনে পড়ল নেটপাড়ার

মাটিতে বল পড়ে গিয়েছিল। তারপরও ক্যাচ ধরেছেন বলে দাবি করেছিলেন। তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.