Breaking News

আমার জীবনের সেরা টি- ২০ ম্যাচ বললেন রোহিত শর্মা, অতিমানবীয় পোলার্ড

অবিশ্বাস্য ম্যাচের জনক হিসেবে পোলার্ডের নামটি মনে রাখবে বিশ্ব, টি ২০ তে এমন ম্যাচই দেরা বিজ্ঞাপন হিসেবে বিবেচ্য।

শেষ বলের থ্রিলার জিততেই ড্রেসিংরুমে আসন ছেড়ে উঠে দুবাহু প্রসারিত করা রোহিতের মুখে হাজার ওয়াটের হাসি লেন্সবন্দি হল ক্যামেরায়। আর ম্যাচের পর কার্যত একক দক্ষতায় দলের বিশ্বস্ত সেনানী কায়রন পোলার্ডের ম্যাচ জেতানো প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ‘হিটম্যান’ বললেন, তাঁর কেরিয়ারে এটাই সেরা টি-২০ ম্যাচ। ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডারের প্রবল ব্যাটিং বিক্রমে তাঁর দল আইপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বাধিক রান তাড়া করে জয় পাওয়ায় মুম্বই অধিনায়ক যারপরনাই তৃপ্ত। সামগ্রিকভাবে দ্বিতীয় হলেও দেশের মাটিতে আইপিএলের ইতিহাসে সর্বাধিক রান তাড়া করে জয় যে এটাই।

আইপিএলের ইতিহাসে মুম্বই’য়ের সর্বাধিক রান তাড়া করে জয়ে এদিন ৩৪ বলে ৮৭ রানের এক মহাকাব্যিক ইনিংস এল পোলার্ডের উইলো থেকে। স্ট্রাইক রেট আড়াইশোরও বেশি। ৬টি চার এবং ৮টি ছক্কায় সাজানো পোলার্ডের সেই ইনিংস দেখে মোহিত দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। ম্যাচের পর এদিন রান তাড়া প্রসঙ্গে ‘হিটম্যান’ বলেন, ‘আমার খেলা সম্ভবত সেরা টি-২০ ম্যাচ। এর আগে আমি এমন রান তাড়া করতে দেখিনি। পলির (পোলার্ড) অন্যতম সেরা ইনিংস। মাঠের বাইরে থেকে এই ইনিংসটা আরও নয়নাভিরাম ছিল। দারুণ পিচ, ছোট মাঠ, আমরা সবসময় ইতিবাচক থাকতে চেয়েছিলাম।’

আরো পড়ুনঃ চেন্নাইয়ের প্রফেশনালিজমে ধরাশায়ী রয়্যালস, ম্যাচ সেরা মহিন আলী

মুম্বই দলনায়ক আরও বলেন, ‘আমাদের শুরুটা ভালোই হয়েছিল আর তারপর যা হল সবাই দেখল। আমরা ক্রিজে গিয়ে ক্ষমতা অনুযায়ী নিজেদের মেলে ধরতে চেয়েছিলাম। শুরুর পার্টনারশিপটা দুর্দান্ত ছিল। এরপর ক্রুনাল-পোলার্ডের জুটিটা সবচেয়ে মূল্যবান। একটা বড় রান তাড়া করতে গেলে দলের পাওয়ার-হিটারদের সবসময় যতোটা সম্ভব বেশি বল খেলতে দেওয়া উচিৎ।’

শুধু ব্যাট হাতেই নয়, বল হাতেও দলের বাকি বোলারদের ব্যর্থতার দিনে উজ্জ্বল পোলার্ড। দ্বাদশ ওভারে ডু’প্লেসি এবং রায়নাকে ফিরিয়ে চেন্নাই’য়ের রানের গতিতে রাশ টানার চেষ্টা করেছিলেন ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডার। কিন্তু বাকি বোলাররা চেন্নাই ব্যাটসম্যানদের সামনে এদিন অসহায় থাকায় সেটা সম্ভব হয়নি। ৪ ওভারে ৫৬ রান খরচ করে এদিন আইপিএল কেরিয়ারে সবচেয়ে দামি স্পেল উপহার দেন স্ট্রাইক বোলার বুমরাহ। তবুও বোলারদের পাশেই দাঁড়াচ্ছেন রোহিত। অধিনায়কের কথায়, ‘পরবর্তীতে বোলারদের থেকে কাজ হাসিল করতে ওদের পাশে দাঁড়াতেই হবে। রাজস্থান ম্যাচে বোলাররাই আমাদের ম্যাচে ফিরিয়েছিল। তাই দলের কোর বোলিং বিভাগের পাশে থাকাটাই কাম্য। আমি নিশ্চিত ওরা আবার নিজেদের কাজটা ঠিক হাসিল করবে।’

শীর্ষে থাকা চেন্নাইকে হারিয়ে প্রথম পর্বের শেষে ৭ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে শেষ করল মুম্বই। যদিও লিগ টেবিলে তাদের অবস্থার কোনও পরিবর্তন তাদের হল না। মঙ্গলবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মুখোমুখি হবে তারা।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

শাকিবকে নিয়ে তোলপাড়! জুয়া সংস্থার সঙ্গে চুক্তি, কড়া ব্যবস্থার পথে বাংলাদেশ

দিন কয়েক আগে একটি সংবাদ পোর্টালের সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তির কথা জানান শাকিব। সংস্থাটি মূলত অনলাইন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.