Breaking News
taskin-come-worldcup-imran

সুযোগ পেলে ইমরানকে বিশ্বকাপ দলে নিতেন তাসকিন

পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খান ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। সুযোগ পেলে ইমরানকে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দলে নিতেন তাসকিন আহমেদ।বিশ্বকাপ উপলক্ষে আয়োজিত আইসিসির অ্যারাউন্ড দ্য উইকেট অনুষ্ঠানে তাসকিন আহমেদকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, সুযোগ পেলে তিনি কাকে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দলে নিতেন। তাসকিন অকপটেই উত্তর দেন, পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরানকে তিনি দলে চাইতেন।

Advertisement

ইমরানকে দলে চাওয়ার কারণ হিসেবে তাসকিন বলেন, “ইমরান খান। নিঃসন্দেহে তিনি একজন অসাধারণ খেলোয়াড় ছিলেন। তিনি একজন অলরাউন্ডার ছিলেন, ফলে ব্যাট ও বল উভয় বিভাগেই আমাদের দল উপকৃত হতো।”এই অনুষ্ঠানে তাসকিন জানিয়েছেন, বিশ্বকাপে বাংলাদেশে তার প্রিয় ম্যাচ কোনটি। ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করা ম্যাচটিই তার চোখে সেরা ম্যাচ।

তাসকিন বলেন, “ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২০১৫ বিশ্বকাপে আমরা ম্যাচটা জিতেছিলাম। ম্যাচটি অনেক নাটকীয় ছিল। শেষে রুবেল হোসেন এসে দুইটা উইকেট শিকার করল এবং আমরা জিতে গেলাম। দুর্দান্ত একটি ম্যাচ ছিল।”২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলেছিলেন তাসকিন। কিন্তু ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাননি তিনি। বিশ্বকাপ দলে জায়গা হারানোর পরেই তাসকিন দাঁতে দাঁত চেপে নতুন উদ্যোমে আবার শুরু করেছিলেন ঘুরে দাঁড়ানোর মিশন।

Advertisement

সেই সময়ের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে তিনি বলেন, “আমি আমার কাজের ধারা পরিবর্তন করে ফেলেছিলাম। একটি শৃঙ্খলার মধ্য ঢুকেছিলাম। আমার একজন ব্যক্তিগত প্রশিক্ষক, মানসিক প্রশিক্ষক, পুষ্টিবিদ নিয়েছিলাম এবং নতুন উদ্যোমে অনুশীলন শুরু করেছিলাম। ওই ৩ বছর, যখন আমি দলে ছিলাম না, খুবই কঠিন সময় ছিল।”

তাসকিন আরও বলেন, “একসময় আমি জাতীয় দলের নিয়মিত সদস্য ছিলাম এবং সেখান থেকে আমাকে ঘরে বসে টিভিতে বাংলাদেশের খেলা দেখতে হচ্ছিল ৩ বছর ধরে- খুব কঠিন সময় ছিল। আলহামদুলিল্লাহ, কঠোর পরিশ্রম করে আমি আবার তিন সংস্করণের চুক্তিতে ফিরে এসেছি।”

Advertisement

 

Advertisement

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

আগামী চার মাসে পাঁচ দেশের টি২০ লিগ, আমিরশাহিতে প্রথম দিনেই মাঠে নামবে কেকেআর

আগামী ডিসেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত পাঁচটি দেশে হবে টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজ়ি লিগ। সেগুলির অন্যতম সংযুক্ত আরব …

Leave a Reply

Your email address will not be published.