Breaking News

বুকিদের তথ্য সরবরাহ করে আইসিসির কাছে ফেসে গেলেন স্ট্রিক

প্রাক্তন জিম্বাবোয়ে অধিনায়ক হিথ স্ট্রিককে ৮ বছরের জন্য নির্বাসিত করেছে আইসিসি।আইসিসির কোড অব কন্ডাক্টের বেশ কয়েকটি ধারা ভেঙে ৮ বছরের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন জিম্বাবুয়ের কিংবদন্তি সাবেক পেসার হিথ স্ট্রিক। তার নিষেধাজ্ঞার খবর অপ্রত্যাশিত ও অভাবনীয় হয়ে ঠেকেছে ক্রিকেট বিশ্বের কাছে।

দুর্নীতিদমন বিরোধী আইন লঙ্ঘন করায় প্রাক্তন জিম্বাবোয়ে অধিনায়ক হিথ স্ট্রিককে ৮ বছরের জন্য নির্বাসিত করেছে আইসিসি৷ জানা গিয়েছে, ২০১৮ আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বোলিং কোচ থাকাকালীন বুকিকে তথ্য সরবরাহ করেছিলেন প্রাক্তন এই জিম্বাবোয়েন ফাস্ট বোলার৷ এর জন্য শাস্তির খাড়া ঝুলতে পারে কিং খানের দলের উপরও৷

আইপিএলের নিয়মানুযায়ী দলের কোনও খেলোয়াড়া বা সাপোর্ট স্টাফ দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকলে তার দায়ভার নিতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিকে৷ যেমন অতীতে চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়্যালেসে আধিকারিকরা ম্যাচ গড়াপেটায় যুক্ত থাকায় দু’বছরের জন্য নির্বাসিত হয়েছিল এই দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি৷ তাহলে কেকেআর-এর বিরুদ্ধেও কি এমনটা দেখা যেতে পারে৷ বোর্ডের তরফে এখনও কোনও বিবৃতি দেওয়া না-হলেও আইসিসি-র কাছ রিপোর্ট পাওয়ার পর বিষয়টি বিবেচনা করবে বিসিসিআই৷

আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্স ছাড়াও গুজরাত লায়ন্স দলের সাপোর্ট স্টাফ হিসেবেও কাজ করেছিলেন স্ট্রিক। এছাড়াও বাংলাদেশেরও বোলিং কোচের দায়িত্ব সামলেছেন জিম্বাবোয়ের এই প্রাক্তন পেসার। বিভিন্ন দলের কোচ থাকার সময় তিনি ম্যাচ গড়াপেটা সংক্রান্ত দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে৷ আইপিএল ছাড়াও বাংলাদেশ প্রিমিয়র লিগ, আফগানিস্তান প্রিমিয়র লিগে কোচ থাকাকালীন অনেকবার আইসিসি–র দুর্নীতি দমনবিরোধী আইন ভঙ্গ করেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।
২০১৭ ও ২০১৮ সালের বেশ কিছু ম্যাচ নিয়ে সন্দেহ তৈরি হওয়ার তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে৷ বুকিদের সঙ্গে দলের ক্রিকেটারদের যোগাযোগে মধ্যস্থতাকারীর ভুমিকা পালন করেছিলেন স্ট্রিক। এ ছাড়াও তিনি দলের ভিতরের গোপন তথ্য ফাঁস করেছেন বলেও অভিযোগ। জিম্বাবোয়ে, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে ২০১৮ সালে ত্রিদেশীয় সিরিজ, জিম্বাবোয়ে–আফগানিস্তান সিরিজ এবং ২০১৮ আইপিএল ও এপিএলে তিনি তথ্য ফাঁস করেছিলেন। আইসিসি–র দুর্নীতি দমন শাখার সামনে সব অভিযোগ স্বীকার করেন নেন প্রাক্তন জিম্বাবোয়ে অধিনায়ক৷

নির্বাসনের ফলে ২০২৯ সালের ২৮ মার্চ পর্যন্ত ক্রিকেটের কোনও কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারবেন না জিম্বাবোয়ের এই প্রাক্তন পেসার৷ যদিও আইসিসি–র দুর্নীতিদমন সংক্রান্ত শিক্ষাদানের কর্মসূচিতে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আইসিসি-র দুর্নীতিদমন শাখার প্রধান অ্যালেক্স মার্শাল৷

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

জুলাই মাসের সেরা জয়াসুরিয়া

জুলাই মাসের প্লেয়ার অব দ্য মান্থের নাম প্রকাশ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। এ মাসের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.