Breaking News
same -to-same-copy-richa-in-dhoni

বিশ্বকাপে ধোনিকে হুবহু নকল করলেন বাংলার রিচা! প্রশংসার বন্যা সব মহলে

বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে হারিয়ে অভিযান শুরু করেছে ভারত। ১০৭ রানে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়েছে মিতালিরা। ম্যাচের সেরা পূজা বস্ত্রকার হলেও ম্যাচে সবথেকে বেশি নজর কেড়েছেন বাংলার রিচা ঘোষ। ব্যাট হাতে সাফল্য না পেলেও উইকেটের পিছনে গ্লাভস হাতে তিনি প্রমাণ করেছেন লম্বা দৌড়ের ঘোড়া তিনি।

রিচার পারফরম্যান্স দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা। তাঁর খেলায় ধোনির ছোঁয়া দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। বরাবরই মহেন্দ্র সিং ধোনির ভক্ত রিচা ঘোষ। ধোনিকে দেখেই ক্রিকেটে যাত্রা এগিয়েছেন ১৮ বছরের বঙ্গতনয়া। ধোনির প্রভাব যে তাঁর মধ্যে কতটা তার প্রমাণ মিলেছে। প্রথম ম্যাচে রিচা চারটে ক্যাচ নিয়েছেন। তিনি বর্তমানে একই ইনিংসে সবথেকে বেশি ক্যাচ নেওয়ার তালিকায় অঞ্জু জৈন এবং অনঘা দেশপান্ডের সঙ্গে একআসনে আছেন। পাশাপাশি বিশ্বকাপের অভিষেক ম্যাচে উইকেটরক্ষক হিসেবে পাঁচটা বা তার বেশি আউট করার নজির তৈরি করলেন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিনি ক্যাচ নিয়েছেন সিড্রা আমিন, বিসমাহ মারুফ, নিদা দার ও নাস্রা সান্ধুর। স্টাম্প আউট করেছেন আলিয়া রিয়াজের।

রিচার একাধিক ক্যাচ নেওয়া থেকে শুরু করে স্টাম্প করা সবেতেই ধোনির ছায়া দেখতে পাচ্ছেন নেটিজেনরা। রিচার প্রশংসার বন্যা বয়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারানোর মধ্যে দিয়ে এই নিয়ে ১১টা ম্যাচে টানা হারাল ভারত। আজ পর্যন্ত পাকিস্তানের কাছে হারেনি ভারতের মহিলারা। ওপেনিং জুটি না টিকলেও ওপেনার স্মৃতি মন্ধনা অর্ধশতরান করেন। ৭৫ বলে ৫২ রান করেন তিনি। দীপ্তি শর্মা ও স্মৃতির জুটিতে ৯২ রান করে। দীপ্তি শর্মা করেন ৪০ রান। মিতালি রাজ, হনমনপ্রীত কাউর, রিচা ঘোষ কেউ দুই অঙ্কের রানে পৌঁছতে পারেননি। তিনজনের রান যথাক্রমে ৯, ৫, ১। সেই সময় মনে হয়েছিল ম্যাচ হাতছাড়া হতে পারে ভারতের। সেইসময় ম্যাচের হাল ধরেন স্নেহ রানা ও পূজা বস্ত্রকার। ১১৪ রানে ৬ উইকেট হারিয়েছিল একসময়। সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন তাঁরা। সপ্তম উইকেটে ১২২ রানে পার্টনারশিপ তৈরি করেন তাঁরা। স্নেহ রানা করেন অপরাজিত ৫৩ রান। আর পূজা বস্ত্রকার করেন ৬৭ রান। এই দুজনের এটা সর্বোচ্চ রান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে।

গত মাসে রিচা জানান, ধোনি তাঁর অনুপ্রেরণা। মিতালি রাজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমি যখন ক্রিকেট দেখা শুরু করি, আমি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে অনুসরণ করতাম, আমি ওনার জোরে শট মারার ক্ষমতায় মুগ্ধ ছিলাম। সঙ্গে উইকেটের পিছনে তাঁর উইকেট তোলার ক্ষমতা। উনি আমার অনুপ্রেরণা।”

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

প্রত্যাবর্তনে কামাল জেমির, শ্রীলঙ্কাকে ৩৪ রানে হারাল ভারত

মিতালি রাজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর এই প্রথমবার কোনও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে নামছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.