Breaking News
odi-captain-retried-kholi

এক দিনের ক্রিকেটেও কি এ বার অধিনায়কত্ব ছা়ড়তে চলেছেন বিরাট কোহলী? শুরু জল্পনা

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পরেই নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ভারতের। বিরাট কোহলী আর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দেশকে নেতৃত্ব দেবেন না জানিয়ে দেওয়ার পর সম্ভবত রোহিত শর্মাই ওই সিরিজে অধিনায়কত্ব করবেন। সংবাদ সংস্থা পিটিআই এই খবর জানিয়ে বলেছে, আগামী দিন দু’য়েকের মধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তা এবং জাতীয় নির্বাচকদের মধ্যে বৈঠক হবে। সেখানে একদিনের ক্রিকেটে কোহলীকে অধিনায়ক রাখা হবে কি না, তা নিয়ে আলোচনা হবে।

চলতি বিশ্বকাপে প্রথম দুটি ম্যাচে হেরে ভারতের সেমিফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা কার্যত নেই। আরও একটি আইসিসি প্রতিযোগিতায় ট্রফি জিততে ব্যর্থ কোহলী। ফলে তাঁকে সরিয়ে দেওয়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহর সঙ্গে জাতীয় নির্বাচকদের বৈঠকে এই নিয়ে জোর আলোচনা হবে।

এমনিতে ভারতের সামনে এখন একদিনের ম্যাচ নেই। আগামী বছর আরও একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে অস্ট্রেলিয়ায়। তাই আগামী বছরও ভারতের একদিনের ম্যাচের সংখ্যা কম।

ভারতীয় বোর্ডের একটি সূত্রকে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, ‘‘যেটা আগে রয়েছে, সেটা আগে করতে হবে। নিউজিল্যান্ড সিরিজের দলটা আগে বাছতে হবে। রোহিত এখনও আমাদের একবারও বলেনি যে, নিউজিল্যান্ড সিরিজে ও অধিনায়কত্ব করতে চায় না। আর সেটা বলবেই বা কেন? টি২০-তে অধিনায়ক হিসেবে এটাই ওর প্রথম সিরিজ হতে চলেছে।’’

কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, রোহিত শর্মা-সহ কয়েকজন নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দুই টেস্টের সিরিজে খেলবেন না। কানপুরে ২৫ থেকে ২৯ নভেম্বর এবং মুম্বইতে ৩ থেকে ৭ ডিসেম্বর এই দুটি টেস্ট হবে। এরকমও হতে পারে, যাঁরা টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলবেন, তাঁরা টেস্ট সিরিজে বিশ্রাম নিতে পারেন। যাঁরা টেস্ট সিরিজে খেলবেন, তাঁরা টি-টোয়েন্টি সিরিজে নাও খেলতে পারেন। কারণ ডিসেম্বরে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ।

একদিনের ক্রিকেটের ক্ষেত্রে এই ঘরোয়া মরসুমে ভারতের মাত্র তিনটি ৫০ ওভারের ম্যাচ রয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে তিনটি ম্যাচই রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। ২০২৩ সালে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে সৌরভের ভারতীয় বোর্ড এখন থেকেই তৈরি হতে চাইছে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজের আগে এখন দেখার, কোহলী নিজে থেকে সরে যান কি না।

পরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হতে আর ১১ মাস বাকি। আগামী জুনের মধ্যে যাবতীয় পরীক্ষ-নিরীক্ষা শেষ করে ফেলতে চান জাতীয় নির্বাচকরা। মনে করা হচ্ছে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজে ভুবনেশ্বর কুমার এবং হার্দিক পাণ্ড্য বাদ পড়বেন। ভুবনেশ্বরের খারাপ ফর্ম। হার্দিকের চোট নিয়ে রহস্য এখনও রয়েছে।

আইপিএল-এ সর্বোচ্চ রান করে কমলা টুপি জয়ী রুতুরাজ গায়কোয়াড়, অন্যতম সেরা বোলার আবেশ খান, অভিজ্ঞ যুজবেন্দ্র চহালকে সুযোগ দেওয়া হতে পারে। হার্দিকের জায়গায় অলরাউন্ডার হিসাবে খেলতে পারেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের বেঙ্কটেশ আয়ার। অক্ষর পটেল, শ্রেয়স আইয়ার, দীপক চাহাররা টি২০ সিরিজে দলে ফিরতে পারেন। শুভমান গিল, ময়াঙ্ক আগরওয়াল, উমেশ যাদবরা টেস্ট সিরিজে দলে ঢুকতে পারেন।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরিকল্পনা এখন থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে, বলে দিলেন কার্তিক

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে ভারত। কার্তিক জানালেন, বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে এর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.