Breaking News
mistake-kkr-retension-kkr-3-crickter-save-now

ভুল হয়েছে KKR-এর রিটেনশনে! এই তিন তারকাকে রাখতেই পারত নাইটরা

আইপিএলের সূচনার সময় থেকেই অন্যতম সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি হিসাবে নিজেদের প্রতিষ্ঠা করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। কেকেআরের জার্সিতে প্ৰথম মরশুম মাতিয়ে যাওয়া ব্রেন্ডন ম্যাককালাম বর্তমানে দলের কোচ। আসন্ন নিলামের আগে দলে চার তারকাকে রিটেন করেছে নাইটরা- সুনীল নারিন, আন্দ্রে রাসেল, ভেঙ্কটেশ আইয়ার এবং বরুণ চক্রবর্তীকে। তবে রিটেনশন দেখে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন আগামী দশ বছরের বিনিয়োগযোগ্য ক্রিকেটার এই তালিকায় স্পষ্ট নয়। দুই ক্যারিবীয় তারকা নিজেদের সেরা সময় পেরিয়ে এসেছেন। ধারাবাহিকতাও নেই আগের মত।

তাই এই দুই তারকাকে আরো কয়েক বছরের জন্য রেখে দিয়ে কেকেআর কি ঠিক সিদ্ধান্ত নিল, এমন প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। তাছাড়া এবার এমন কাউকে ধরে রাখা হয়নি যিনি দলের অধিনায়ক হতে পারেন। মর্গ্যান, কার্তিক দুজনকেই রিলিজ করে দেওয়া হয়েছে। নিলাম থেকেই আপাতত নয়া ক্যাপ্টেন খোঁজার ভাবনা নাইটদের।

বর্তমান চার তারকার বদলে কাকে কাকে রিটেন করলে সুবিধা পেতে পারত নাইটরা, দেখে নেওয়া যাক-
শুভমান গিল: শুভমান গিল দীর্ঘদিন ধরে নাইটদের টপ অর্ডারের স্তম্ভ। ভারতীয় ক্রিকেটের নেক্সট বিগ থিং বলা হচ্ছে এই পাঞ্জাব তনয়কে। ধারাবাহিকভাবে রান করে নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করেছেন। শুভমান গিল থাকলে টপ অর্ডার নিয়ে যেমন দুশ্চিন্তা দূর হত, তেমন নাইটদের পরবর্তী নেতৃত্বের ব্যাটবয়স কম। তরুণ তুর্কিকে ভবিষ্যতের কথা ভেবেই ফ্র্যাঞ্চাইজিতে দীর্ঘদিনের হিসাবে রাখা উচিত ছিল। তবে সে পথে হাঁটেনি কেকেআর। বলা হচ্ছে, অতীতে সূর্যকুমার যাদবকে যেভাবে রিলিজ করে পরে কেকেআরকে পস্তাতে হয়েছিল, সেরকমই নতুন আক্ষেপের জন্ম দিতে পারেন শুভমান গিল।নও স্বচ্ছন্দে তুলে দেওয়া হত তারকার হাতে।

লকি ফার্গুসন: কিউয়ি এই পেস সেনসেশন টি২০ ক্রিকেটের অন্যতম সেরা তারকা। ধারাবাহিকভাবে ৯৫ মাইলের আশেপাশে বোলিং করতে পারেন। নতুন বলের সঙ্গে পুরোনো বলেও স্বচ্ছন্দ। ২২ আইপিএল ম্যাচে লকির নামের পাশে এখনই ২৪ উইকেট। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৫টি ম্যাচে তিনি ২৫ উইকেট শিকার করেছেন ১৫.৪০ গড়ে। তাছাড়া লোয়ার অর্ডারে দুর্ধর্ষ ব্যাটিংও করতে পারেন। ব্যাট হাতেও নিজেকে প্রমাণ করেছেন তিনি। কেকেআর লকিকে ছেড়ে দিয়ে মহা-ভুল করল কিনা, তা সময়ই বলবে।

শিভম মাভি: ২০১৮-য় যুব বিশ্বকাপ জয়ী দলে শুভমান গিলের সঙ্গেই ছিলেন শিভম মাভি। মাভির সঙ্গে কমলেশ নাগারকোটিও আলোচনায় উঠে এসেছিলেন। তবে শিভম মাভির র পেস ব্যাটসম্যানদের অস্বস্তিতে ফেলার জন্য যথেষ্ট। ২৩ বছরের এই তরুণ তুর্কি বিজয় হাজারে ট্রফিতে ৭ ম্যাচে ১৫ উইকেট তুলে নিয়ে নজর কেড়েছেন।

তবে মাভি বেশ ইনজুরি প্রবণ। সেই কারণেই হয়ত কেকেআর তাঁকে রিলিজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২০১৮ সালে শিভম মাভিকে কিনেছিল নাইটরা। কেকেআর ছেড়ে দেওয়ার পরে নিলামে মাভিকে টার্গেট করছে বেশ কিছু ফ্র্যাঞ্চাইজি।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

ব্যাট হাতে নেমে পড়লেন কেএল রাহুল! শেয়ার করলেন ভিডিয়ো

কেএল রাহুল কবে টিম ইন্ডিয়াতে ফিরবেন? সেই অপেক্ষায় রয়েছেন লোকেশ রাহুলের সকল ভক্ত। প্রথমে চোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published.