Breaking News

‘লিটনের মতো সুযোগ পৃথিবীর কোনো ব্যাটার পায় কি না, জানি না’

মিরপুরে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের দুটি সিরিজে ফ্লপ ছিলেন ওপেনার লিটন কুমার দাস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ব্যর্থতার ধারাবাহিকতায় ছুটছেন।

Advertisement

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নামার আগে সবশেষ ১২ ইনিংসে লিটনের রান ছিল ১০.৯২ গড়ে ১৩১!

বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে ব্যর্থতায় মোড়ানো লিটনের ইনিংসগুলো নিয়ে তুমুল সমালোচনা হচ্ছে।

Advertisement

তবু লিটন নিয়মিত একাদশে। তার দলে অন্তর্ভুক্তি নিয়ে এত সমালোচনার কোনোটাই পাত্তা দিচ্ছে না বিসিবি।

এসব পরিসংখ্যান জানিয়ে ক্রীড়াব্যক্তিত্ব গাজী আশরাফ হোসেন লিপু বিস্ময় প্রকাশ করে কলাম লিখেছেন।

Advertisement

গণমাধ্যমে লেখা কলামে তিনি বলেছেন, ‘লিটনের মতো এমন সুযোগ পৃথিবীর কোনো ব্যাটার পায় কিনা, জানি না। ইংল্যান্ডের ম্যাচে দুটি চারের ঝলক দেখিয়েছে সে। এর পর বাস্তবতাটা আগের মতোই দুঃখজনক। ফের কম রানে সাজঘরে লিটন।

লিপু প্রশ্ন রাখেন— একজন খেলোয়াড় এতবার ব্যর্থ হওয়ার পরও তাকে প্রথম একাদশে রাখা হয় কী করে?

Advertisement

তিনি বলেন, ‘এমন ব্যর্থতার পরও যদি মূল একাদশে একজন খেলোয়াড়ের জায়গা নিশ্চিত হয়, এটিই বলে দেয় দলের অবস্থাটা কী? দল তার কাছ থেকে ভালো শুরু আশা করে, তখন গোটা দলের ছবিটাই ফুটে ওঠে।’

প্রসঙ্গত এবার বিশ্বকাপের অফিসিয়াল দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে লিটন শ্রীলংকার বিপক্ষে ১৬ ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ১ রান করে আউট হন। প্রথম রাউন্ডের তিন ম্যাচে তার রান যথাক্রমে ৫, ৬ ও ২৯।  এর পরও সুপার টুয়েলেভে দিব্যি ওপেনার হিসেবে ঠাঁই পেলেন লিটন। লংকানদের বিপক্ষে ১৬ রান করলে অনেকেই বিষয়টি মেনে নিয়েছিলেন। কিন্তু ফিল্ডিংয়ে দুটো ক্যাচ ফেলে দিয়ে লিটন জানিয়ে দিলেন, কতটা অনমনস্ক বা স্নায়ুচাপে ভুগছেন ইদানীং।

শুধু লিপুই নন; লিটনকে একাদশে অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরাম। বলেছিলেন—   ‘লিটন দাস তো প্রস্তুতি ম্যাচ থেকেই ঘুমিয়ে আছে বলে মনে হচ্ছে। আমি জানি না সে দলে কেন আছে?’

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

ভারতীয় তারকারা অনুপস্থিত, সিরিজ জমাতে বদলার গল্প হর্ষের, গান্ধীগিরি উইলিয়ামসনের- ভিডিয়ো

হর্ষের বদলা নেওয়ার ঘটায় নিজে খাবি খেলেও, প্রতিশোধের আগুনে জ্বললেন না কেন উইলিয়ামসন। বরং গান্ধীগিরি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.