Breaking News

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে ৬ উইকেটে হারিয়ে প্লে-অফের খেলার আশা টিকিয়ে রাখল কলকাতা নাইট রাইডার্স

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলে আজ সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে ৬ উইকেট হারিয়ে আইপিএলের প্লে-অফের খেলার আশা টিকিয়ে রাখে কলকাতা নাইট রাইডার্স। কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১১৫ রান সংগ্রহ করে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স।টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে শুরু থেকেই হায়দরাবাদকে চেপে ধরে কলকাতা। পাওয়ার প্লে’র শেষ ওভারে চারটি চারের মারে ১৮ রান নেন হায়দরাবাদ অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। তবু প্রথম ৬ ওভারে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় মাত্র ৩৫ রান, সাজঘরে ফিরে যান ঋদ্ধিমান সাহা (০) ও জেসন রয় (১০)।মাত্র ১৬ রানে দুই উইকেট পতনের পর তৃতীয় উইকেটে প্রিয়াম গার্গকে সঙ্গে নিয়ে চাপ সামাল দেয়ার কাজটা ভালোভাবেই করছিলেন উইলিয়ামসন। ইনিংসের সপ্তম ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে এসেই জুটি ভেঙে দেন সাকিব। ওভারের পঞ্চম বলে কুইক সিঙ্গেল নিতে চেয়েছিলেন উইলিয়ামসন। সরাসরি থ্রো’য়ে বিদায়ঘণ্টা বাজান সাকিব।

ইনিংসের সপ্তম থেকে ১৩ ওভার পর্যন্ত টানা চার ওভার বোলিং করেন সাকিব। এর মধ্যে নিজের দ্বিতীয় ওভারে পেতে পারতেন প্রথম উইকেট। কিন্তু প্রিয়াম গার্গের ফিরতি ক্যাচটি চেষ্টা করেও এক হাতে লুফে নিতে পারেননি তিনি। ফলে প্রথম দুই ওভারে উইকেটবঞ্চিতই থাকতে হয় তাকে।অপেক্ষার প্রহর ফুরায় ব্যক্তিগত তৃতীয় ওভারে। উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে খেলতে গিয়েছিলেন অভিষেক শর্মা। কিন্তু আর্মার করে বসেন সাকিব। তাতেই ধরা অভিষেক, সহজ স্ট্যাম্পিং করেন দিনেশ কার্তিক। নিজের শেষ ওভারে স্পেলের একমাত্র বাউন্ডারি হজম করেন সাকিব। সবমিলিয়ে তার ৪ ওভারে আসে মাত্র ২০ রান।সাকিবের এমন পারফরম্যান্সের দিন কম যাননি নারিন-বরুনও। কোনো উইকেট না পেলেও চার ওভারে মাত্র ১২ রান খরচ করেছেন নারিন। আরেক স্পিনার বরুন চার ওভারে ২৬ রান খরচায় নিয়েছেন ২ উইকেট। এছাড়া দুই পেসার শিভাম মাভি ও টিম সাউদিরও শিকার ২টি করে উইকেট।

হায়দরাবাদের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৬ রান করেছেন উইলিয়ামসন। এছাড়া আব্দুল সামাদ ২৫ ও প্রিয়াম গার্গের ব্যাট থেকে আসে ২১ রান। এর বাইরে দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন কেবল জেসন রয়। যে কারণে ১১৫ রানের বেশি করতে পারেনি হায়দরাবাদ।১১৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ভেঙ্কটেস আইয়ারের (৮) উইকেট হারায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। তবে এরপর ৭ রান করে রাহুল ত্রিপাঠী আউট হলে কিছুটা চাপে পড়ে কলকাতা নাইট রাইডার্স। কিন্তু অন্য প্রান্ত থেকে ম্যাচে বের করে নিয়ে আসেন ওপেনার ব্যাটসম্যান শুভমান গিল।নিতেশ রানাকে সাথে নিয়ে ৫৫ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন তিনি। দলীয় ৯৩ রানের মাথায় ৫৭ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন শুভমান গিল। ৫১ বলে দশটি চারের সাহায্যে এই রান করেন তিনি। এরপর নিতেশ রানা আউট হন ২৫ রান করে। শেষের দিকে ১৮ রান করে অপরাজিত থাকেন দীনেশ কার্তিক। এই জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলে চতুর্থ স্থান ভালোভাবেই পাকা করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

কার্তিককে চরম অপমান করলেন জাদেজা!

এখন থেকে ঠিক দুই মাস পর ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়া যেতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.