Breaking News
indian-newzeland-match-who-win

প্রথম জয়ের খোঁজে ভারত-নিউজিল্যান্ড,কে জিতবে ?

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অন্যতম ফেভারিট ভারত ও নিউজিল্যান্ড। তবে আসরের শুরুটা রাঙাতে পারেনি কোনো দলই। পাকিস্তানের কাছে হেরে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হয় টিম ইন্ডিয়া এবং ব্ল্যাক ক্যাপদের। এবার প্রথম জয়ের খোঁজে মুখোমুখি হচ্ছে দু’দল। আজ রাত ৮টায় দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিরাট কোহলিদের মোকাবিলা করবে কিউইরা।

সুপার টুয়েলভের লড়াইয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় ভারত। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে পাত্তাই পায়নি কোচ রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা। ১০ উইকেটে ভারতীয়দের হারায় বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান।
শুরুতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রানের স্কোর পায় ভারত।

অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং ঋষভ পন্ত বাদে টিম ইন্ডিয়ার কোনো ব্যাটারই ছুঁতে পারেননি ২০-এর কোঠা। এরপর বল হাতেও পাক ব্যাটারদের নিগ্রহের শিকার হয় ভারতীয় বোলাররা। স্পিনার কিংবা পেসার- সবাইকে বেধড়ক পিটিয়ে পাকিস্তানকে স্মরণীয় জয় এনে দেন দুই ওপেনার বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান।

চলতি বিশ্বকাপে প্রথম জয় পেতে বোলারদের সঙ্গে ভারতীয় ব্যাটারদেরও ভালো করতে হবে কিউইদের বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচে টপ অর্ডার ব্যাটার রোহিত শর্মা ফেরেন শূন্য হাতে। লোকেশ রাহুল ৩ এবং সূর্যকুমার যাদব করেন মাত্র ১১ রান।
পাকিস্তান ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে ব্যাটার-বোলারদের ভালো করার আহ্বান জানিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি।

তিনি বলেন, ‘প্রথম ম্যাচের ভুলগুলো থেকে শিক্ষা নিতে হবে আমাদের। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জিততে হলে, ব্যাটারদের বড় ইনিংস খেলতে হবে। বোলারদেরও উন্নতি করতে হবে। পাকিস্তানের বিপক্ষে কোনো চাপই তৈরি করতে পারেনি বোলাররা। আশা করি কালকের (আজকের) ম্যাচে দুই বিভাগই জ্বলে উঠবে।’ আসরে পাকিস্তানের শিকার হয় নিউজিল্যান্ডও।

ভারতীয়রা লড়াই করতে না পারলেও এক সময় ম্যাচে জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়েছিল কিউইরা। ১৩৪ রানের স্বল্প পুঁজি নিয়েও নিউজিল্যান্ড বোলাররা ম্যাচের লাগাম ধরেছিলেন।  ৮৭ রানে পাকিস্তানের ৫ উইকেট নেয় তারা। শেষ দিকে আসিফ আলীর ১২ বলে অপরাজিত ২৭ রানের কাছে হেরে যায় নিউজিল্যান্ড। ৮ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে পাকিস্তান।

হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলেও ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের কাছে হারায় আমরা বিচলিত নই। ভারতের বিপক্ষে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। দলের সবাই জয়ের জন্য উদগ্রীব হয়ে আছে।’

ভারত-নিউজিল্যান্ডের মধ্যে যে জয়ী হবে সেমিফাইনালের পথে এগিয়ে থাকবে সে দল। ক্রিকেট বিশ্বের দুই পরাশক্তির মধ্যকার ম্যাচটি যে জমজমাট হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শক্তি-সামর্থ্যে দু’দলের অবস্থা প্রায় কাছাকাছি। সর্বশেষ প্রকাশিত আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। দুই ধাপ পিছিয়ে নিউজিল্যান্ডের অবস্থান চারে।

‘হেড টু হেড’ পরিসংখ্যানে ভারতের চেয়ে এগিয়ে নিউজিল্যান্ড। আর্ন্তজাতিক টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত মোট ১৬বার দেখা হয়েছে দু’দলের। তার মধ্যে ৮ জয় নিউজিল্যান্ডের। ভারত জিতেছে ৬ ম্যাচ। বাকি দুই ম্যাচ ‘টাই’।
সর্বশেষ সাক্ষাতের স্মৃতি কিউইদের চেয়ে আত্মবিশ্বাসে এগিয়ে রাখবে ভারতীয়দের।

গত বছরের জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজটি ৫-০ ব্যবধানে জিতে নেয় টিম ইন্ডিয়া।
আর ভারতীয়দের সামনে থাকছে প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগও। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে পরাস্ত হয়েই বিদায় নিয়েছিল কোহলির ভারত। চলতি বছরেই প্রথম আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেও ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় নিউজিল্যান্ড।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

এশিয়া কাপের দল ঘোষণা করল ভারত, ১৫ জনের স্কোয়াডে রয়েছে চমক

আসন্ন এশিয়া কাপের জন্য শক্তিশালী স্কোয়াড ঘোষণা করল ভারত। যদিও পূর্ণ শক্তির স্কোয়াড নিয়ে এশিয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published.