Breaking News
india-or-pakistan-which-love-sania-mirza-told-shoheb-malik

‘ভারত না পাকিস্তান, কাকে বেশি ভালোবাসো?’, স্বামী শোয়েবের প্রশ্নের সপাট জবাব সানিয়ার

রতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা এবং পাকিস্তানের ক্রিকেটার শোয়েব মালিক জুটি সবসময়ই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকে। সম্প্রতি টি-২০ বিশ্বকাপের সময় স্বামীকে সাপোর্ট করার জন্য সানিয়া মির্জা নিয়মিতভাবে স্টেডিয়ামে আসতেন এবং উৎসাহ দিতেন। ইতিমধ্যে সানিয়া মির্জা এবং শোয়েব মালিক পাকিস্তানের টেলিভিশন অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। সেইসময়ই এই দম্পতির একটি মজাদার ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক Behind The Scene অংশে সানিয়া মির্জাকে একটা প্রশ্ন করা হয়েছিল। তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয়, কোন প্রশ্নে আপনি বেশি রেগে যান। তখন সানিয়া জানান, আমি বারবার বলেছি, আমাকে কখনও ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ চলার সময়, ‘কাকে বেশি সাপোর্ট করেন?’ এই ধরনের প্রশ্ন করবেন না। এই প্রশ্নটা শুনলেই আমার মাথা গরম হয়ে যায়।

ঠিক এই সময় অনুষ্ঠানে আসেন সানিয়া মির্জার স্বামী শোয়েব মালিক। তিনিও ঠিক একই প্রশ্ন সানিয়া মির্জার দিকে ছুঁড়ে দেন। ‘সত্যি করে বলো তো, যখন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আয়োজন করা হয়, তখন তুমি কাকে সাপোর্ট করো?’ সানিয়ার চটজলদি পালটা প্রশ্ন, ‘যখন টেনিসে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হয়, তখন তুমি কাকে সাপোর্ট করবে?’

জবাবে শোয়েব মালিক বলেন, ‘আমি নিজের বউকেই সাপোর্ট করব। কিন্তু আমি নিজের দেশকেও ভালোবাসি।’ জবাবে সানিয়া বলেন, ‘আমারও সেই একই উত্তর। আর কোনওদিন আমাকে এই প্রশ্ন করো না।’

এই প্রসঙ্গে আপনাদের জানিয়ে রাখি যে হালে সানিয়া মির্জা এবং শোয়েব মালিক করাচিতে রয়েছেন। দুজনকে মাঝেমধ্যেই বিভিন্ন টেলিভিশন অনুষ্ঠানে দেখতে পাওয়া যায়। টি-২০ বিশ্বকাপের পর শোয়েব বাংলাদেশে সিরিজ খেলতে যান। কিন্তু, ছেলের শরীর খারাপ হওয়ার কারণে তাঁকে পাকিস্তানে ফিরে যেতে হয়।

তবে একদিকে হাসি-মশকরা চললেও, শোয়েবের পারফরম্যান্স নিয়ে একেবারেই খুশি নন বাবর আজম। সূত্র থেকে আরও জানা গিয়েছে, শোয়েবের সঙ্গে এই ব্যাপারে বাবরের একপ্রস্থ নাকি কথাবার্তাও হয়ে গিয়েছে। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ৩৯ বছর বয়সি ক্রিকেটারকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, পরবর্তী কোনও বৃহত্তর সিরিজে তাঁকে নিয়ে আবারও ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে।

আগামী ১৩ ডিসেম্বর জাতীয় স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টি-২০ ম্যাচ খেলবে পাকিস্তান।

শোনা যাচ্ছে, এই সিরিজে সুযোগ পেতে পারেন শাহনাওয়াজ দাহানি, মহম্মদ নওয়াজ, উসমান কাদির, খুশদিল শাহ এবং হায়দার আলির মতো তরুণ ক্রিকেটাররা।

সম্প্রতি টি-২০ বিশ্বকাপের স্কোয়াডে তাঁরা থাকলেও, একটাও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি। এই টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে পাকিস্তানকে।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

পারনেলের বোলিং নৈপুণ্যে প্রোটিয়াদের সিরিজ জয়

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ইংল্যান্ডকে হারানোর পর এবার আয়ারল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করল দক্ষিণ আফ্রিকা। শুক্রবার রাতে ব্রিস্টলে দ্বিতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.