Breaking News

রমিজ রাজার হাত থেকে পাকিস্তানি বোলারদের কিভাবে বাঁচিয়েছিলেন বাবর

রমিজ রাজার হাত থেকে পাকিস্তানি বোলারদের কিভাবে বাঁচিয়েছিলেন বাবর

পাকিস্তানের বোলারদের ওপর ভীষণ চটেছিলেন রমিজ রাজা। বাবর আজমের ব্যাট ‘ঢাল’ হয়ে উঠেছিল বলে রক্ষা। নইলে হারিস রউফ-ফাহিম আশরাফদের নিয়ে রমিজ কী বলতেন কে জানে! সেদিন বাবরের সেঞ্চুরিই বাঁচিয়ে দিয়েছে পাকিস্তানের বোলারদের। রমিজ রাজার কথা শুনলে অন্তত এমনই মনে হবে।

Advertisement

দক্ষিণ আফ্রিকা-পাকিস্তান চতুর্থ টি-টোয়েন্টি আজ। আপাতত চার ম্যাচের এ সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে পাকিস্তান। সেটি সম্ভব হয়েছে সেঞ্চুরিয়নে পরশু তৃতীয় ম্যাচে বাবরের দারুণ এক সেঞ্চুরির জন্য। তাঁর ৫৯ বলে ১২২ রানের ইনিংসে প্রোটিয়াদের ৫ উইকেটে ২০৩ রানের পুঁজি টপকে যেতে সমর্থ হয় পাকিস্তান। মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাট থেকেও এসেছে ৪৭ বলে ৭৩ রানের দারুণ এক ইনিংস।

টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানি বোলিংয়ের বিপক্ষে রানের গতি বাড়ানো কঠিন। ২০০ রান তোলা তো আরও কঠিন। এ সংস্করণে গত সাত বছরের মধ্যে প্রথম দল হিসেবে পাকিস্তানের বিপক্ষে সে ম্যাচে ২০০ রানের দেখা পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। পাকিস্তানের বোলাররা কতটা বাজে বোলিং করেছেন, তা বুঝিয়ে দেবে আরও একটি পরিসংখ্যান—টি-টোয়েন্টিতে (তৃতীয় ম্যাচে) এই প্রথম পাকিস্তানের পাঁচ বোলার মিলে নিজেদের ৪ ওভারের কোটায় ওভারপ্রতি গড়ে রান দিয়েছেন ৯-এর বেশি। পাকিস্তানের সাবেক ব্যাটসম্যান ও বর্তমানে ধারাভাষ্যকার রমিজের তাই মেজাজ হারানো অস্বাভাবিক কিছু নয়।আরো পড়ুনঃ র‌্যাঙ্কিংয়ে বিরাট কোহলীকে বাবর আজমের হুংকার

Advertisement

সংবাদমাধ্যমকে রমিজ বলেন, ‘ইনিংস বিরতির সময় বিশ্লেষণে আমি পাকিস্তানের বোলারদের প্যান্ট টেনে খুলে ফেলতে প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু বাবর আজমের ইনিংসে মেজাজ ঠান্ডা হয়। বাবর তার টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের সেরা ইনিংস খেলেছে। এমনকি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এমন ইনিংস আপনি দেখবেন না।’

পাকিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস ও দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়া বাবর গড়েছেন আরেকটি বড় কীর্তিও। তৃতীয় ম্যাচটি ছিল পাকিস্তান অধিনায়কের ৫০তম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। ৫০ ম্যাচে ১ হাজার ৯১৬ রান বাবরের। ২০ ওভারের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম ৫০ ম্যাচে এত রান করতে পারেননি অন্য কেউ।

Advertisement

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে দ্রুততম সেঞ্চুরি ও ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস খেলার রেকর্ডও এখন বাবরের। দুটি রেকর্ডেরই মালিক ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জোহানেসবার্গে ১১৭ রান করার পথে ৫০ বলে তিন অঙ্ক ছুঁয়েছিলেন গেইল।

Advertisement

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কাকে হারাল আফগানিস্তান, ২০২৩ ODI বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন করল পাকিস্তান!

পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তানের মধ্যে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এই ম্যাচে টসে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.