Breaking News
Hasan Ali's Indian wife stabbed in Pakistan

পাকিস্তানে হাসান আলীর ভারতীয় স্ত্রীকে নিয়ে খোঁটা

ক্যাচ মিস খেলারই অংশ—লোকে এমনিতে বলে থাকে। কিন্তু ক্যাচ ছাড়ার কারণে ম্যাচ হারলে বিষয়টা আর স্বাভাবিক থাকে না। ক্যাচ ফেলা খেলোয়াড়টিকে স্রেফ টিটকারি–সমালোচনায় ডুবিয়ে ফেলা হয়। উপমহাদেশের ক্রিকেটে এটা একরকম প্রথাই।

টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে হারের পর ভারতের পেসার মোহাম্মদ শামিকে যেমন তাঁর ধর্ম নিয়ে কটাক্ষ শুনতে হয়েছে, তেমনি হাসান আলীকেও এখন তেমন সময়ের মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে।

টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কাল গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ম্যাথু ওয়েডের ক্যাচ নিতে পারেননি হাসান আলী। হারের জন্য ক্যাচ ছাড়াকেই মূল কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম।

এদিকে পাকিস্তানের অনেক ভক্ত হারের জন্য কাঠগড়ায় তুলেছেন হাসানকে। তাঁর শিয়া মতাবলম্বী ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে কটূক্তি করতে ছাড়েনি পাকিস্তানেরই সমর্থকেরা, কথা শোনাতে ছাড়েননি হাসান আলীর ভারতীয় স্ত্রীকেও।

ওয়েডের ক্যাচটা যখন ছাড়েন হাসান আলী, সে সময় জয় থেকে ১০ বলে ২০ রানের দূরত্বে ছিল অস্ট্রেলিয়া। এমন সময়ে মিড উইকেটে ওয়েডের ক্যাচ হাতছাড়া হয় পাকিস্তানের পেসারের। ক্যাচ তো ছুটেছেই, সেখান থেকে ২ রানও নিয়ে নেন ওয়েড–স্টয়নিস জুটি। পরের তিন বলে তিন ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতিয়ে হাসানের ক্যাচ ছাড়ার ‘দুঃখ’কে ‘নরকযন্ত্রণা’য় পরিণত করেন ওয়েড।

সেটির দায়ে এখন হাসান আলীর ধর্মবিশ্বাস নিয়ে খোঁটা শুনতেই হচ্ছে, কটূক্তি হচ্ছে তাঁর স্ত্রীকে নিয়েও। হাসান আলীর স্ত্রী এমিরেটসের ফ্লাইট প্রকৌশলী সামিয়া আরজু। ভারতের হরিয়ানায় বেড়ে ওঠা এ নারীকে ২০১৯ সালে দুবাইয়ে বিয়ে করেন হাসান।

কাল হারের পর অনেক ভক্ত সামিয়াকে ‘র এজেন্ট’ বলে নানা কটূক্তিও করেন। এমনকি শোয়েব মালিকের স্ত্রী ভারতের টেনিস তারকা সানিয়া মির্জাকেও কটূক্তি শুনতে হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

তবে ভারতের কিছু ক্রিকেটভক্ত আবার হাসান আলীর পাশে দাঁড়িয়েছেন। ক্রিকেটে পাকিস্তানের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশটির কিছু সমর্থক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হাসান আলীর পক্ষে বিভিন্ন পোস্ট করেছেন।

মোহাম্মদ শামি সমালোচনার শিকার হওয়ার পর পাকিস্তানের ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান ভারতীয়দের বলেছিলেন শামির পাশে দাঁড়াতে। এ নিয়ে তিনি টুইটও করেন। সেই টুইট হাসানের পক্ষে এখন ব্যবহার করছেন ভারতের বেশ কিছু ক্রিকেটপ্রেমী।

এদিকে পাকিস্তানের কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরামকে পাশে পাচ্ছেন ২৭ বছর বয়সী হাসান। ওয়াসিম বলেছেন, ‘আমরা একদমই চাই না যে দেশের সবাই এখন বেচারা হাসানের পেছনে লাগুক। এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে আমি আর ওয়াকার ইউনিসও গিয়েছি। এই হার তাদের অনেক দিন দুঃস্বপ্নের মতো তাড়া করে বেড়াবে। ফলে জাতি হিসেবে তাদের এ কষ্ট আরও বাড়িয়ে দেওয়া আমাদের উচিত হবে না।’

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

জুলাই মাসের সেরা জয়াসুরিয়া

জুলাই মাসের প্লেয়ার অব দ্য মান্থের নাম প্রকাশ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। এ মাসের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.