Breaking News
belive-work-rahul-told-gautam

‘মুখের কথায় নয়, কাজে বিশ্বাসী রাহুল’, শাস্ত্রীর সমালোচনায় সরব গম্ভীর

চলতি মাসের শুরুতেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের পদ থেকে ইতিমধ্যেই অবসর গ্রহণ করেছেন রবি শাস্ত্রী। টি-২০ ক্রিকেট বিশ্বকাপের সুপার ১২ পর্যায় থেকে ভারত ছিটকে যাওয়ার পরই শাস্ত্রীর মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। রবি শাস্ত্রীর কোচিংয়ে ভারতীয় ক্রিকেট দল টেস্ট ক্রিকেটে শীর্ষস্থানে পৌঁছেছিল। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বেশ কয়েকটি টেস্ট ম্যাচেও জয়লাভ করে ভারত। পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ইংল্যান্ডের মাটিতেও ভারত জয়লাভ করেছে।

তবে শাস্ত্রীর কোচিংয়ে কোনও ICC ট্রফি জিততে পারেনি ভারত। ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে রানার্স আপ হয়েছিল, ২০১৯ বিশ্বকাপে সেমিফাইনালিস্ট এবং বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেও রানার্স আপ হয় ভারত। আর সম্প্রতি টি-২০ বিশ্বকাপে তো হতাশাজনক পারফরম্য়ান্স করেইছে। সেকারণে শাস্ত্রীর মেয়াদ আর রিনিউ করা হবে কি না, তা নিয়ে আগেই যথেষ্ট মতভেদ ছিল।

টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন হেড কোচ রবি শাস্ত্রীর এই ব্যর্থতা প্রসঙ্গে গৌতম গম্ভীরকে জিজ্ঞাসা করা হলে ভারতের এই প্রাক্তন ওপেনার কার্যত সমালোচনাই করলেন। বিশেষ করে বিদেশের মাটিতে ম্যাচ জেতার পর রবি শাস্ত্রী যে মন্তব্য করেছিলেন, তা নিয়ে একেবারেই খুশি নন গম্ভীর।

নবভারত টাইমসকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে গম্ভীর বললেন, ‘একটা ব্যাপার দেখে আমি সবসময়ই অবাক হয়ে যেতাম যে যখন তুমি ভালো খেলছ, সেটা নিয়ে আড়ম্বর করার কোনও দরকার নেই। ২০১১ সালে আমরা যখন বিশ্বকাপ জয় করেছিলাম, তখন ব্যক্তিগতভাবে কেউ কোনও মন্তব্য করিনি। সবসময় বলেছিলাম, এটাই বিশ্বের সেরা দল। গোটা দেশের একজোট হওয়া উচিত।’

সেইসঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেট দলের এই প্রাক্তন ওপেনার আরও যোগ করেন, ‘যখন আপনি জয়লাভ করেন, তখন আপনাকে নিয়ে অন্যদের কথা বলতে দিন। আপনি অস্ট্রেলিয়ায় জিতেছেন, এটা নিঃসন্দেহে একটা বড় কৃতিত্ব। আপনি ইংল্যান্ডে জিতেছেন, নিঃসন্দেহে দল যথেষ্ট ভালো পারফরম্যান্স করেছে। কিন্তু অন্যদিকে প্রশংসা করতে দিন। রাহুল দ্রাবিড়ের থেকে আপনি কখনই এমন কথাবার্তা শুনতে পাবেন না। ভারত ভালো খেলুক কিংবা খারাপ, দ্রাবিড়ের মন্তব্যে সবসময়ই একটা ভারসাম্য থাকে। এই ছাপটা অন্য ক্রিকেটারদের মধ্যেও দেখতে পাওয়া যায়।’

এই প্রসঙ্গে আপনাদের জানিয়ে রাখি, ২০১৯ সালে অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ জয়ের পর রবি শাস্ত্রী মন্তব্য করেছিলেন, ১৯৮৩ সালের থেকে এই জয় কোনও অংশে কম নয় কিংবা তার থেকে বৃহত্তরও হতে পারে।

এই মন্তব্য টেনেই গম্ভীর বললেন, ‘সমালোচনা অত্যন্ত জরুরি, তা সে আপনি ভালো খেলুন কিংবা খারাপ। ক্রিকেটের কোনও পরিবর্তন হয় না। আমি মনে করি দ্রাবিড়ের প্রধান ফোকাস থাকে একজন ভালো মানুষ কীভাবে হওয়া যায়।’

ভারত বনাম নিউ জিল্যান্ড সিরিজ দিয়েই রাহুল দ্রাবিড়ের কোচিং মেয়াদ শুরু হয়েছে। টি-২০ ক্রিকেটে নতুন অধিনায়ক নির্বাচিত হয়েছেন রোহিত শর্মা। রোহিত-রাহুল জুটিতে ভারত নিউ জিল্য়ান্ডকে এই সিরিজে ৩-০ ব্য়বধানে পরাস্ত করেছে।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

নেতৃত্বভার পেলে সানন্দে গ্রহণ করবেন হার্দিক

ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেয়ার সুযোগ পেলে অবশ্যই তা সানন্দে লুফে নিতে চান হার্দিক পান্ডিয়া। তবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.