Breaking News

ভারত-পাকিস্তানকে নিয়ে তিন দেশের সিরিজ চায় অস্ট্রেলিয়া!

ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ কী, সেটি নতুন করে বলার দরকার পড়ে না। এই তো কয়েক মাস পরই অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মুখোমুখি হবে দুই দল। মেলবোর্ন ক্রিকেট মাঠে হতে যাওয়া ম্যাচটির দুই লাখ টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই।

কেনই–বা হবে না! আইসিসির টুর্নামেন্ট বা এশিয়া কাপ ছাড়া তো এ দুই দলের খেলা দেখা যায় না অনেক দিন হলো। কূটনৈতিক উত্তেজনার কারণে প্রায় এক দশক ধরে প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ আর হয় না। ভারত-পাকিস্তানের লড়াই আরও নিয়মিত দেখতে আগ্রহী ক্রিকেটপ্রেমীদের কানে মধু ঢালতে পারে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী নিক হকলির প্রস্তাব। ভারত ও পাকিস্তানকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছেন হকলি।

এমন সিরিজের প্রস্তাব অবশ্য এটিই প্রথম নয়। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান রমিজ রাজা গত জানুয়ারিতে প্রস্তাব দিয়েছিলেন ভারত, পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া আর ইংল্যান্ডকে চার জাতি টুর্নামেন্ট আয়োজনের। ঘুরে ঘুরে একেক দেশ একেকবার স্বাগতিক হবে, এমনটাই প্রস্তাব ছিল রমিজের। তবে হকলি চার দেশের নয়, ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের পক্ষে।

গত পরশু রাওয়ালপিন্ডিতে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তানের টেস্ট ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের হকলি বলেছেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি ত্রিদেশীয় সিরিজ পছন্দ করি। আগেও এমন সিরিজ দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। আমরা সুযোগ পেলে এই সিরিজের আয়োজক হতে চাই।’

অস্ট্রেলিয়ার আয়োজক হতে চাওয়ার কারণ বুঝতে খুব বেশি ভাবতে হয় না। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ, সে বিশ্বের যে প্রান্তেই হোক না কেন, মাঠে দর্শক টানবেই! আর অস্ট্রেলিয়ায় তো উপমহাদেশের মানুষের অভাব নেই! হকলিও বলছেন, ‘অস্ট্রেলিয়ায় ভারত ও পাকিস্তানের মানুষের অনেক বড় সম্প্রদায় আছে।’

শুধু অস্ট্রেলিয়ার ভারত-পাকিস্তানের মানুষের কথাই কেন, ভারত আর পাকিস্তানের ব্যাট-বলের দ্বৈরথ নিয়ে আগ্রহ তো বিশ্বের সব ক্রিকেটপ্রেমীরই। হকলির কি আর সেটি অজানা! সিএ প্রধান বললেন, ‘এটা এমন একটা লড়াই, যেটা বিশ্ব ক্রিকেটে সবাই-ই দেখতে চায় এবং আমরা যদি এই দ্বৈরথ আরও বেশি দেখার সুযোগ করে দিতে পারি, সেটা ভালোই লাগবে আমাদের।

তবে ত্রিদেশীয় সিরিজের ভাবনা শিগগিরই বাস্তবায়ন হয়তো সম্ভব হবে না। আইসিসির ভবিষ্যৎ সফরসূচিতে (এফটিপি) যে ২০২৩ পর্যন্ত ঠাসা সূচি! উল্লেখ্য, ২০১২ সালের শেষের দিকে ভারতের মাটিতে সর্বশেষ কোনো দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলেছিল ভারত ও পাকিস্তান।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

শাস্তি পেলো ভারত, লাভ হলো পাকিস্তানের

ভারত দলের ব্যাটিং লাইনআপকে বলা হয় বিশ্বসেরা। আর বিশ্বসেরারদের সামনে জো রুট ও জনি বেয়ারস্টোর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.