Breaking News
2023-worldcup-arrangment-bangladesh-and-india

২০৩১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করবে বাংলাদেশ–ভারত

ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে ২০৩১ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করবে বাংলাদেশ। ২০২৪ থেকে ২০৩১ সালের ছেলেদের বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের স্বাগতিকদের নাম আজ ঘোষণা করেছে আইসিসি। এ চক্রে এই একটি টুর্নামেন্টেরই আয়োজক হবে বাংলাদেশ।

Advertisement

সব মিলিয়ে এ সময়ে হবে আটটি বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট, আয়োজক হবে ১৪টি দেশ। এ ১৪টি দেশের মধ্যে ১১টি পূর্ণ সদস্য, বাকি তিনটি সহযোগী দেশ। প্রথমবারের মতো আইসিসির বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে যুক্তরাষ্ট্র ও নামিবিয়া। একমাত্র পূর্ণ সদস্য হিসেবে আফগানিস্তানই কোনো বৈশ্বিক ট্রফির আয়োজক থাকছে না। ২০২৪ থেকে ২০৩১ সাল পর্যন্ত এ চক্রে সব মিলিয়ে হবে দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপ, চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও দুটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি।

বিসিসিআইয়ের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ও ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের সভাপতি রিকি স্কেরিটের সঙ্গে মার্টিন স্নেডেনের নেতৃত্বে একটা উপকমিটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক আয়োজক নির্বাচনের প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বেছে নিয়েছে স্বাগতিক দেশগুলো। আইসিসির ব্যবস্থাপনায় আগ্রহী দেশগুলোর ব্যাপারে যাচাই-বাছাই করে দেখার পর নেওয়া হয়েছে এমন সিদ্ধান্ত।

Advertisement

২০৩১ সালে ভারত ও বাংলাদেশের যৌথ আয়োজনের বিশ্বকাপই এ চক্রে আইসিসির শেষ বৈশ্বিক ইভেন্ট। সর্বশেষ ২০১১ সালে উপমহাদেশে হয়েছিল বিশ্বকাপ। সেবার ভারতের সঙ্গে ছিল বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাও। এরপর ২০১৪ সালে এককভাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ।

এ চক্রে একমাত্র ভারতই আয়োজক হিসেবে থাকবে তিনটি বৈশ্বিক টুর্নামেন্টেই- টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ওয়ানডে বিশ্বকাপ যৌথভাবে আয়োজনের সঙ্গে একটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি এককভাবে আয়োজন করবে তারা।

Advertisement

২০২৪ থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত প্রতি দুই বছর পর পর হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০০৭ সালে শুরু হওয়া এ টুর্নামেন্টের প্রতিবারই ছিল একক আয়োজক (২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে হলেও এর মূল আয়োজক ছিল ভারতই)।

তবে পরের চক্রে প্রতিটি আসরই হবে যৌথ আয়োজনে। ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে ২০১০ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০২৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে ভারত ও শ্রীলঙ্কায়, ২০২৮ সালে হবে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে। ২০৩০ সালে এটি হবে ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডে।

Advertisement

এ চক্রে হবে দুটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি- ২০২৫ সালের আসরটি হবে পাকিস্তানে, চার বছর পর আরেকটি আসর হবে ভারতে। ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপের পর এই প্রথম আইসিসির বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট ফিরছে পাকিস্তানে।

২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের আয়োজক আগে থেকেই ভারত। ২০২৭ সালে পরবর্তী বিশ্বকাপ হবে আফ্রিকায়- দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে ও নামিবিয়া আয়োজন করবে যৌথভাবে। এর আগে সর্বশেষ ২০০৩ সালের বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকায়, সঙ্গে ছিল জিম্বাবুয়ে ও কেনিয়া।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

এই নিয়ে দ্বিতীয়বার আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ টাই হলেও সুপার ওভারে নিষ্পত্তি হল না, আগের নজির কোনটি?

এই নিয়ে দ্বিতীয়বার কোনও আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ টাই হল, অথচ সুপার ওভারে তার ফলাফল নির্ধারিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.