Breaking News

বিশ্ব ক্রিকেটের এই ৯ ক্রিকেটার সৌভাগ্যবান! যারা ‘স্যার’ উপাধিতে ভূষিত হয়েছেন

বিশ্বের যেকোনো জনপ্রিয় খেলা আছে তার মধ্যে ক্রিকেট একটি জনপ্রিয় খেলা। ব্রিটিশ রাজা-রানীরা নতুন বর্ষে একজনকে নাইটহুড প্রদান করে থাকেন দেশ সেবার জন্য। এই সম্মানটা হলো যে তার নামের পাশে স্যার উপাধি যোগ করা হয়।

ভারতীয় অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা কে স্যার বলে ডাকা হয়। কিন্তু এটি তার স্যার উপাধি নয়। মহেন্দ্র সিং ধোনি মজা করে একবার জাদেজাকে স্যার বলে ডেকেছিলেন এবং তারপর থেকে সবাই জাদেজাকে স্যার বলে ডাকা শুরু করে দেয়। আজকের এই আলোচনায় যে 9 জন স্যার উপাধি পেয়েছেন তাদেরকে নিয়ে আলোচনা করব।

স্যার লিওনার্ড হাটন:
স্যার উপাধি পাওয়ার মধ্যে সবথেকে প্রথমে যিনি পেয়েছেন তিনি হচ্ছেন স্যার লিওনার্ড হাটন। ইংল্যান্ডের এই ক্রিকেটার প্রথম স্যার উপাধি লাভ করেন। কিউইদের বিপক্ষে ঐতিহাসিক লর্ডসে 1926 সালে তার অভিষেক ঘটে। তিনি তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট ম্যাচটি খেলেছেন 1955 সালে।

স্যার জ্যাক হবস:
ইংলিশ কিংবদন্তিদের মধ্যে জ্যাক হবস এই স্যার উপাধি পাওয়ার মধ্যে একজন। 1955 সালে তার একটি রেকর্ড এর মাধ্যমে তিনি এই উপাধি জয়লাভ করেছেন। ক্রিকেট বিশ্বে তিনি অন্যতম সেরা ব্যাটিং হিসেবে পরিগণিত হয়ে রয়েছেন।

স্যার ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যানঃ
বিশ্বের সর্বকালের সেরা এবং অস্ট্রেলিয়ার সর্বকালের সেরা ডন ব্র্যাডম্যান স্যার উপাধি পেয়েছিলেন। টেস্ট ক্রিকেটে কথা যেখানে বলা হয় সেখানে ডন ব্র্যাডম্যানের কথা বলা হবে না এমনটা হতেই পারে না। 1948 সালে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে ছিলেন এই কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান। নিজের চমৎকার পারফরম্যান্সের জন্য স্যার উপাধি পেয়েছিলেন ব্র্যাডম্যান।তিনি ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি পেয়েছেন।

স্যার গ্যারি সোবার্স:
ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রাক্তন অধিনায়ক এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তিদের মধ্যে একজন তিনি। ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই ভালো পারফরম্যান্স করে গেছেন গ্যারি সোবার্স। স্টাইলিশ অলরাউন্ডার হিসেবে ক্রিকেট বিশ্বে পরিচিত। 1975 সালে রানী এলিজাবেথ তাকে স্যার উপাধি দিয়েছিলেন।

স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস:
ওয়েস্ট ইন্ডিজের আগুন ঝরানো তারকা ব্যাটসম্যান তিনি। এবং তার সময়কার স্টাইলিশ প্লেয়ারদের মধ্যে একজন। 1999 সালে ক্রিকেটে অপরিসীম ভূমিকা রাখার জন্য আন্টিগা সরকার তাকে স্যার উপাধি প্রদান করে ।

স্যার ইয়ান বোথাম:
ইংল্যান্ডের সেরা অলরাউন্ডার এবং বিশ্বের অলরাউন্ডার দের মধ্যে তিনি একজন যিনি স্যার উপাধি লাভ করেছেন।২০০৭ সালে রানী এলিজাবেথ কর্তৃক স্যার উপাধি সম্মানে সম্মানিত হন। ব্যাটিং ও বোলিং – উভয় বিভাগেই অসামান্য রাখায় তিনি ক্রিকেট ইতিহাসে প্রকৃত অল-রাউন্ডারের মর্যাদা পেয়েছেন।

স্যার কার্টলি অ্যামব্রোস:
ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুর্দান্ত ফাস্ট বোলার ছিলেন তিনি। তিনিও স‍্যার উপাধি লাভ করেছেন।ক্রিকেটে অসামান্য অবদানের জন্য ২০০৪ সালে অ্যান্টিগা সরকার তাকে ‘স্যার’ উপাধিতে ভূষিত করেন। ৬ ফুট ৭ ইঞ্চির উচ্চতার অধিকারী কার্টলি অ্যামব্রোস অপ্রত্যাশিতভাবে বলকে বাউন্স প্রদানে সক্ষম ছিলেন।

স্যার রিচার্ড হ্যাডলি:
আশির দশকের সেরা অলরাউন্ডার এর মধ্যে তিনি ছিলেন একজন। প্রথম ফাস্ট বোলার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে 400 এর ক্লাবের পদার্পণ করেছিলেন। 1990 সালে নাইটহুড স্যার উপাধি লাভ করেন। 86 টেস্ট খেলে 431 উইকেট নিয়েছেন।পাশাপাশি ৩১২৪ রান করা হ্যাডলি ১১৫ ওয়ানডেতে ১৫৮ উইকেট ও ১৭৫১ রান করেছেন।

অ্যালেস্টার কুকঃ
ইংল্যান্ডের এই প্রাক্তন অধিনায়ক 1919 সালে নাইটহুড (স্যার) উপাধি জিতেছিলেন। নিজের ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেন ওভালে। 2006 সালে 21 বছর বয়সী কুকের অভিষেক ঘটে ভারতের মাটিতে। অভিষেকে শতরান বানিয়ে ছিলেন তিনি। টেস্ট ক্রিকেটে তার সর্বোচ্চ স্কোর 298। তার নামের পাশে 33 টি সেঞ্চুরি এবং 57 টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

কোহলির কোন রেকর্ড ভাঙলাম? প্রশ্ন বাবর আজমের

দীর্ঘ সময় ধরে ফর্মে আছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। ব্যাট হাতে নামলেই ফিফটি, সেঞ্চুরি হাঁকাচ্ছেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.