Breaking News

এবারের এশিয়া কাপ ওয়ানডে নাকি টি-২০ ? জানুন বিস্তারিত

এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) শনিবার ঘোষণা করেছে যে এশিয়া কাপ ২০২২ শ্রীলঙ্কায় ২৭শে অগাস্ট থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত খেলা হবে। টুর্নামেন্টটি এই বছর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে খেলা হবে এবং এর জন্য কোয়ালিফায়ার শুরু হবে এই বছরের ২০শে আগস্ট থেকে।

এসিসির বার্ষিক সাধারণ সভায় বেশ কিছু বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। ভারতের পক্ষ থেকে জয় শাহর পাশাপাশি পাকিস্তান, বাংলাদেশ, আফগানিস্তানসহ অন্যান্য এশিয়ান ক্রিকেট দলের বোর্ড প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। “এই বছরের শেষের দিকে এশিয়া কাপ ২০২২ (টি-২০ ফরম্যাট) শ্রীলঙ্কায় ২৭শে অগাস্ট থেকে ১১ই সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

এর জন্য কোয়ালিফায়ার ২০শে অগাস্ট ২০২২ থেকে থেকে খেলা হবে,” এসিসি বিবৃতিতে বলেছে। ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান ছাড়া আর একটি কোয়ালিফায়ারকে নিয়ে খেলা হবে আসন্ন এশিয়া কাপ ২০২২। কাউন্সিলের সদস্যরা এসিসির সভাপতি হিসেবে জয় শাহের মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্তও নিয়েছেন।

বিসিসিআই সচিব শাহ ২০২৪ সালের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) পর্যন্ত এসিসির নেতৃত্ব দেবেন। “এসিসি সদস্যরা সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে এসিসি সভাপতি হিসাবে মিঃ জয় শাহ-এর মেয়াদ এবং একজিকিউটিভ বোর্ড ও কমিটিগুলি সহ ২০২৪ এজিএম পর্যন্ত চলবে,” এসিসি জানিয়েছে। জিএমের ভাষণে শাহ বলেন,

এসিসির মূল লক্ষ্য হবে এই অঞ্চলে খেলাধুলার উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। শাহ বলেন, “আমরা এই অঞ্চলে ক্রিকেটের সর্বাত্মক উন্নয়ন নিশ্চিত করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, বিশেষ করে মহিলাদের ক্রিকেটে অগ্রণী কাজের ক্ষেত্রে এবং এসিসি সারা বছর এই অঞ্চলে পরিচালিত একাধিক তৃণমূল টুর্নামেন্টকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

“আশা করি মহামারীটিকে আমরা পিছনে ফেলে এসেছি এবং এখান থেকে আমরা এসিসিকে উদ্ভাবনের মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইব।” শাহ বলেছেন। শাহের দায়িত্বকাল বৃদ্ধির প্রস্তাব করেছিলেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি) সভাপতি শাম্মি সিলভা এবং এসিসির সকল সদস্য সর্বসম্মতিক্রমে এই মনোনয়নকে সমর্থন করেছিলেন।

শাহ বলেন, “আমার প্রতি তাদের বিশ্বাস রাখার জন্য আমি এসিসির সকল সহকর্মীদের কাছে ধন্য এবং আমাদের শুরু করা সমস্ত কাজ চালিয়ে যাওয়ার জন্য আমাকে যোগ্য মনে করার জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমি বিনয়ের সাথে এই সম্মান গ্রহণ করছি এবং আমি এই অঞ্চলে আমাদের প্রিয় খেলা ক্রিকেটকে সংগঠিত, বিকাশ এবং প্রচারের কাজ করতে এবং

এসিসির মর্যাদা বৃদ্ধি করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ,” তিনি যোগ করেছেন। এজিএম সভায়, এসিসি কাতার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদ সহযোগী থেকে পূর্ণ সদস্যে উন্নীত করেছে।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Leave a Reply

Your email address will not be published.