Breaking News

‘আরে আমি কোনও ক্রেডিট নিইনি স্যার,’ দু’বলে ম্যাচ জিতিয়ে কী বললেন দীনেশ কার্তিক

দীনেশ কার্তিক মাত্র দুই বলে ১০ রান করার পর জমায়েত ছিনিয়ে নেন। সকলের নজর কেড়ে নিয়েছেন ফিনিশর ডিকে। এদিনের ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলনে কার্তিককে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আরে আমি কোনও ক্রেডিট নিইনি স্যার।

Advertisement

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে ৬ উইকেটে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে সমতায় ফিরেছে ভারত। টিম ইন্ডিয়ার এই জয়ে ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন। তিনি ২০ বলে অপরাজিত ৪৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন। যদিও দীনেশ কার্তিক মাত্র দুই বলে ১০ রান করার পর জমায়েত ছিনিয়ে নেন। সকলের নজর কেড়ে নিয়েছেন ফিনিশর ডিকে। এদিনের ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলনে কার্তিককে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আরে আমি কোনও ক্রেডিট নিইনি স্যার।

সাংবাদিক সম্মেলনে দীনেশ কার্তিক বলেন, ‘আরে আমি কোনও কৃতিত্ব নিইনি স্যার, রোহিত শর্মা অসাধারণ ব্যাটিং করেছেন। শেষের দুটি বল পেয়েছি, যেটা হয়েছে সেটা চেষ্টা করেছি মাত্র। রোহিত শর্মা আজ অসাধারণ ব্যাটিং করেছেন। নতুন বলে সেই উইকেটে সেই শট খেলা বিশ্বমানের বোলারদের পক্ষে সহজ নয়। শুধু ভারতীয় ক্রিকেটে নয়, বিশ্ব ক্রিকেটে রোহিত শর্মা কত বড় খেলোয়াড় তা তিনি দেখিয়েছেন। তাঁর ফাস্ট বোলারদের খেলার খুব ভালো ক্ষমতা আছে যা তাঁকে বিশেষ করে তোলে।’

Advertisement

এছাড়াও দীনেশ কার্তিক প্লেয়িং ইলেভেন কম্বিনেশন নিয়েও কথা বলেছেন। তিনি বলেছিলেন যে হার্দিক পান্ডিয়া দলে থাকাটা দারুণ ব্যপার। তিনি দলকে সঠিক ভারসাম্য প্রদান করেন। দীনেশ কার্তিক আরও বলেন, ‘আজ আমাদের চারজন বোলার দরকার ছিল কারণ একজন বোলার সর্বোচ্চ দুই ওভার বল করতে পারে। কিন্তু আমাদের কাছে এখনও পাঁচটি বিকল্প ছিল।
হার্দিক পান্ডিয়ার মতো বিশ্বমানের বোলার পাওয়াটা দারুণ।’ এরপরে হার্দিক নিয়ে বলতে গিয়ে দীনেশ কার্তিক বলেন, ‘হার্দিক পান্ডিয়া যখন প্লেয়িং ইলেভেনে আছেন, দলে অনেক ভারসাম্য আছে বলে মনে করা হচ্ছে। এই ক্ষেত্রে, আপনি একটি অতিরিক্ত বোলার বা ব্যাটারকে খেলাতে পারেন। বিশ্ব ক্রিকেটে খুব কম খেলোয়াড়ই আছে যারা দলকে এই ধরনের ভারসাম্য প্রদান করে। অক্ষর প্যাটেলও এখন এই পথ অনুসরণ করছেন। যার কারণে আজ ব্যাট করার সুযোগ না পেলেও ঋষভ পন্ত খেলেছেন।’

এদিনের ম্যাচ কথা বলতে গেল, নাগপুরে বৃষ্টির কারণে শেষ পর্যন্ত ৮ ওভারের ম্যাচ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যার মধ্যে থাকে ২ টি পাওয়ার প্লের ওভার। এদিন রোহিত টসে জিতে অস্ট্রেলিয়াকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায়। অজি দল নির্ধারিত ৮ ওভারে করে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ৯০ রান। ভারতের হয়ে ১৩ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন অক্ষর প্যাটেল। জবাবে ৭.২ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত। ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হয়েছেন রোহিত শর্মা।

Advertisement

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Dipok Deb Nath

Check Also

মেজাজ হারালেন রোহিত, রেগে তরুণ ওয়াশিংটনকে দিলেন ‘গালাগালি’, চটে লাল নেটপাড়া

মাঠের মধ্যেই ওয়াশিংটন সুন্দরের উপর চটলেন ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। এমনকী তরুণকে গালাগালি দেওয়ারও অভিযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.