Breaking News

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যতগুলো রেকর্ড়ের জন্ম দিলেন বাবর-রিজওয়ান!

বাবর আজমের ১৯৬, মোহাম্মদ রিজওয়ানের অপরাজিত ১০৪ রানের সঙ্গে আব্দুল্লাহ শফিকের ৯৬ রানের ইনিংসে ১৭১.৪ ওভার ব্যাটিং করে করাচি টেস্ট ড্র করেছে পাকিস্তান। এ ম্যাচ দেখেছে বেশ কিছু রেকর্ডও—

১৭১.৪
‘টাইমলেস’ টেস্ট বাদ দিলে চতুর্থ ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ওভার ব্যাটিং করে টেস্ট ড্র করার নতুন রেকর্ড গড়ল পাকিস্তান। এর আগের রেকর্ডটি ছিল ইংল্যান্ডের। ১৯৯৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জোহানেসবার্গে ড্র করতে চতুর্থ ইনিংসে তারা খেলেছিল ১৬৫ ওভার।

৫২০
বল খেলার হিসাবে চতুর্থ ইনিংসে তৃতীয় উইকেট জুটিতে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন বাবর আজম ও আবদুল্লাহ শফিক। পাকিস্তানের দুই ব্যাটসম্যান ভেঙেছেন ভারতের দীপ দাসগুপ্ত ও রাহুল দ্রাবিড়ের ২০০১ সালের রেকর্ড। সেবার দ্বিতীয় উইকেটে দুজন খেলেছিলেন ৫০০ বল।


পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংসে বাবর দ্বিশতক হাতছাড়া করেছেন ৪ রানের জন্য, শফিক শতক পাননি ৪ রানের জন্য। রিজওয়ান অবশ্য শতক পেয়েছেন ঠিকই। তবে তিনজনের ইনিংসে একটা রেকর্ড হয়ে গেল। ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে কমপক্ষে তিনজন ব্যাটসম্যানের ৯০ রান পেরোনোর ঘটনা দেখা গেল মাত্র দ্বিতীয়বার। প্রথমটি হয়েছিল ১৯৩৯ সালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টাইমলেস টেস্টে চতুর্থ ইনিংসে ইংল্যান্ডের পল গিব করেছিলেন ১২০ রান, বিল এডরিচ ২১৯ রান ও অধিনায়ক ওয়ালি হ্যামন্ড ১৪০ রান।

৬০৩
চতুর্থ ইনিংসে বাবর ব্যাটিং করেছেন ৬০৩ মিনিট। বিশ্বরেকর্ড না ভাঙলেও বেশ কাছাকাছি গেলেন পাকিস্তান অধিনায়ক। দীর্ঘতম ইনিংসের বিশ্ব রেকর্ডটা মাইকেল আথারটনের। জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আথারটন ব্যাটিং করেছিলেন ৬৪৩ মিনিট। বাবর আজ তালিকায় দুই নম্বরে ওঠার পথে ছাড়িয়ে গেলেন দিলীপ ভেংসরকরকে। ১৯৭৯ সালে দিল্লিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে সেবার ৫২২ মিনিট ব্যাটিং করেছিলেন ভেংসরকর।

৪২৫
প্রথম পাকিস্তানি ও সব মিলিয়ে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে চতুর্থ ইনিংসে ৪০০ বা এর বেশি বল খেললেন বাবর। টেস্ট ইতিহাসে তাঁর আগে এ কীর্তি ছিল মাইকেল আথারটন, সুনীল গাভাস্কার ও হারবার্ট সাটক্লিফের।

১৯৬
৪ রানের জন্য ক্যারিয়ারের প্রথম দ্বিশতকটা পাননি বাবর। তবে চতুর্থ ইনিংসে অধিনায়ক হিসেবে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা হয়ে গেছে তাঁর। ভেঙেছেন মাইকেল আথারটনের ১৮৫ রানের রেকর্ড। পাকিস্তানের কোনো ব্যাটসম্যানেরও চতুর্থ ইনিংসে এটি সর্বোচ্চ স্কোর।

২২৮
চতুর্থ ইনিংসে তৃতীয় উইকেটে চতুর্থবারের মতো ২০০ পেরোনো জুটি দেখল টেস্ট ক্রিকেট। সর্বশেষ জুটিটি এসেছিল ২০১৫ সালে, গড়েছিলেন শান মাসুদ ও ইউনিস খান, পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

About Cricvive Desk

Cricvive is a sports media company that produces original video, audio, and written content for cricvive.com and other media partners, as well as the general public and news organizations.

Check Also

রোহিত, কোহলি নন, কোন ভারতীয় সবচেয়ে ভালো খেলেন বোল্টকে

করুণ নায়ার নামটা কি খুব চেনা চেনা লাগছে? না চেনার কিছু নেই। টেস্টে কেবল দ্বিতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.